Rudranil থেকে বড় ‘মাফিয়া’ দলে খুব কমই আছে, পালটা জবাব Soham Chakraborty-র

সম্প্রতি বেশ কয়েকটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছিলো টলিউডের বেশ কয়েকজন সদস্য বিজেপি এবং তৃণমূলে অংশগ্রহণ করেছেন। রাজনীতির রঙে টলিপাড়া যে ভাবে রাঙিয়ে উঠেছে তা সম্পর্ক অটুট রাখতে একে অপরের সাথে কতটা সাথ দেবে তা বলা বেশ কঠিন হয়ে উঠছে। Actor and TMC Leader Soham Chakraborty attack Rudranil Ghosh as a Mafia.

সূত্রের খবর রুদ্রনীল (Rudranil Ghosh) বিজেপিতে পা রেখেছেন। এবং তাঁর বক্তব্য যে,’ টলিউডে মাফিয়া রাজ চলছে’। অভিনেতা রুদ্রনীলের এরূপ বক্তব্যের প্রেক্ষিতে তৃণমূল যুব সভাপতির সোহম চক্রবর্তী (Soham Chakraborty) অভিযোগ জানান, বিরোধী দলের নাম লিখিয়ে ইন্ডাস্ট্রি তথা সমাজের সবচেয়ে খারাপ এটা হতে পারে না। সোহম বলেন ইন্ডাস্ট্রি খুবই ছোট। যদি এমনই কিছু ঘটে থাকে তাহলে সেটা বোঝার মত ক্ষমতা অনেকেরই আছে এবং কেউ না কেউ তার প্রতিবাদ করত। তবে রুদ্রনীল ই বা কেন এতদিন প্রতিবাদ করল না? রুদ্রনীলের প্রতি ফুঁসে ওঠে সোহম বলেন যে তিনি যে দলে যোগ দিয়েছেন তার থেকে বড় মাফিয়া দল আর কিছু হতে পারে না।

সোহম এর বক্তব্য, দেশবাসীর ওপর যা ঘটছে তা তারা নিজেরাই দেখতে পাচ্ছেন। বিজেপির মত মাফিয়ারাজ দল দেশবাসী এর আগে কখনো দেখেনি। এমনকি চলচ্চিত্রজগতের অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ (Saayoni Ghosh) এবং দেবলীনা দত্ত প্রতিবাদ স্বরূপ কোন বক্তব্য রাখলে তাকে প্রকাশ্যে ধর্ষণ করার মত কথা শুনতে হয়েছে। সুতরাং এরূপ হুমকির মধ্য দিয়ে দেশবাসীগণ খুব সহজেই বিচার করতে পারছেন দেশে মাফিয়া রাজ দলবল কে বা কারা! দেশের সর্বনাশ কারা করতে সক্ষম!

সভাপতি তথা অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী (Soham Chakraborty) বলেন যে ইন্ডাস্ট্রিতে আগে কখনো রাজনৈতিক রঙ ভেদাভেদ এনে দিতে পারেনি। বিজেপি আসার পরই শুধু বাংলাকে দখল করার একমাত্র উদ্দেশ্য না পাশাপাশি বড় বড় শিল্প গুলির প্রতিও তাদের সবার নজর আছে ভেঙে গুঁড়িয়ে ফেলার। সাথে তিনি এও বলেছেন যে অভিনেতা এবং অভিনেত্রী বৃন্দ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের থেকে যে সম্মান তারা পেয়েছেন। এরম সম্মান শ্রদ্ধা তারা এর আগে কখনো পাননি সে কথাটা সকলের মনে রাখা দরকার। মুখ্যমন্ত্রী এই মুখ্য দায়িত্ব সমাজের বিশেষ ব্যক্তিদেরকেই দিয়েছেন। এবং তারা প্রতি মুহূর্ত চেষ্টা করে যাচ্ছেন যে কিভাবে বাংলা ইন্ডাস্ট্রি কে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়। তবু কেন রুদ্রনীল বাংলাকে নিয়ে নানা মন্তব্য করছেন বলে অভিযোগ আনছেন সোহম চক্রবর্তী।

রুদ্রনীলের প্রতি একাধিক প্রশ্ন তুলে সোহম (Soham Chakraborty) বলেন যে সব ক্ষমতা ভোগ করে নেওয়ার পর অপরদিকে ক্ষমতা আসায় অতীতকে ভুলে এখন সুর পাল্টাচ্ছেন? সাথে এও বলেন ইন্ডাস্ট্রির প্রতি এত অভিযোগ এতদিন কোথায় ছিল? এতদিন তা সহ্য করলেন কেন রুদ্রনীল (Rudranil Ghosh)? স্বজনপোষণ নিয়ে রুদ্রনীলের যা বলার তা সরাসরি বলতে বলা হয়েছে।

বিপরীত পক্ষে সদস্য রুদ্রনীল (Rudranil Ghosh) বলেন “মাফিয়া রাজ চলছে টলিউডে। একটার পর একটা প্রযোজক বাংলা ছেড়ে চলে যাচ্ছেন। তাদের ঘাড়েই বন্দুক রেখে চলছে কলাকৌশল। অতিরিক্ত লোকজন বসে বসে টাকা নিচ্ছেন। ফলস্বরূপ অনেকের মনেই অসন্তোষের ক্ষোভ বাড়ছে।” যাদেরকে কোনোভাবেই সামনে দেখা যাচ্ছে না বলেই অভিনেতা রুদ্রনীলের অভিযোগ।