কর্ণাটকে ভাঙচুর হওয়া iPhones কারখানা থেকে লুট ৪৪০ কোটি টাকার আইফোন, আপেল সংস্থার অভিযোগ

কর্নাটকের (Karnataka) আইফোন কারখানায় কর্মী বিক্ষোভের জের। কর্নাটকের কোলার (Kolar) জেলায় আইফোনের (iPhones) একটি কারখানায় দীর্ঘক্ষণ ধরে ভাঙচুর চলে। এর পর অগ্নিসংযোগ করে দেওয়া হয় সেই আইফোন কারখানাটিতে। তারই ফাঁকে লোপাট হয়ে যায় পেটি পেটি আইফোন। Apple claims iPhones worth Rs 440 Crore looted at Karnataka’s Kolar plant violence by workers.

কর্নাটকের কোলার জেলায় আইফোনের কারখানাটিতে কাজ করেন প্রায় ৮ হাজার কর্মী। সূত্রের খবর বহুদিন ধরে সেই আইফোন কারখানার কর্মীরা তাদের মাইনে পান নি। এই নিয়ে বহু মাস ধরে আটকে থাকে তাদের মাইনে। তবুও এহেন অবস্থায় দিনের পর দিন কাজ করতে থাকে সেই সমস্ত কর্মীরা। ক্ষোভের আগুন ঘনীভূত হতে শুরু করে সেই থেকেই। এবং সেই আগুনে ঘৃতাহুতির ফলশ্রুতিই‌ হল এই কর্ম বিক্ষোভ। শনিবার আইফোনের কারখানায় এই ঘটনাটি ঘটে। কেউ বা কারা কর্মীদের উত্তপ্ত করেছে যার ফলে কর্মীরা এই ধরনের বিক্ষোভ দেখাতে সাহস পেয়েছেন, এমনটাই দাবি সেই কারখানার আধিকারিকের।

কর্নাটকের নারাসপুরার কোলার জেলায় আইফোন কারখানায় শ্রমিক বিক্ষোভ হয়েছে তাতে সেই কারখানা থেকে লোপাট করা হয়েছে প্রায় ৪৪০ কোটি টাকার আইফোন। এত কোটি টাকার সম্পত্তি লোপাটে কর্মীদের ইন্ধন রয়েছে এমনটাই সন্দেহ করা হচ্ছে কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। ঘটনার দিন আইফোনের কারখানায় ভাঙচুর করে বহু ল্যাপটপ এবং সরঞ্জাম ভেঙে ফেলে কর্মীরা। শুধু তাই নয় কারখানার জিনিসপত্র এবং কাঁচ ভাঙচুর করা হয়। জানাযায় কর্মীরা ঘটনার দিন ভোর সাড়ে ছটা থেকে এই বিক্ষোভ চালাতে শুরু করেন।

কারখানায় এই লুটপাটের ঘটনা পুলিশকে জানানো হয় সংস্থার তরফ থেকে। পাশাপাশি শ্রম মন্ত্রকেও ঘটনাটি বিষয়টি জানায় সংস্থার কর্তৃপক্ষ। কারখানায় ভাংচুরের পাশাপাশি একাধিক গাড়িতে ভাঙচুর চালায় সংস্থার কর্মীরা। শুধু তাই নয় কিছুক্ষণ পরে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় কারখানার ভেতরে। এর ফাঁকেই চলে লুটপাট। লোপাট করে দেওয়া হয় ৪৪০ কোটি টাকার আইফোন। কোলার জেলার এসপি সুপার বলেন ঘটনাটি খতিয়ে দেখছেন তাঁরা। তিনি জানান ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে লাঠিচার্জ করে থামানোর চেষ্টা করে সেই বিক্ষোভকারী দলকে। পাশাপাশি কে বা কারা এই ঘটনার মূল আসামি তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে কর্ণাটক পুলিশ।

কর্ণাটক সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই কাজ যারা করেছেন তা অত্যন্ত গর্হিত। খুব জলদি কর্ণাটক সরকার এবং কর্ণাটক পুলিশ সেই সমস্ত আসামিদের খুঁজে বের করবেন।