গ্রেপ্তার রিয়া, টুইট করে বিশেষ বার্তা দিলেন সুশান্তের দিদি

সুশান্ত সিং রাজপুতের রহস্যময় মৃত্যু তদন্তের নতুন মোড়। দীর্ঘ কয়েক দিন ধরেই জল্পনা চলছিল। শেষ পর্যন্ত জল্পনাযই সত্যি হল। টানা তিনদিন ম্যারাথন জেলার পর রিয়া চক্রবর্তী কে গ্রেপ্তার কোরলো নারকটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। মাদক যোগের কথা নিজ মুখে শিকার করায় সুশান্তের প্রাক্তন প্রেমিকাকে গ্রেফতার করা হলো। রিয়ার গ্রেপ্তারের খবর আসতে সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিং-এর টুইট বার্তা, “ভগবান আমাদের সঙ্গেই আছেন।”

উল্লেখ্য, সোমবার এনসিবির জেরার পর বেরিয়েই বান্দ্রা পুলিশ স্টেশনে গিয়ে সুশান্তের দুই বোনের নামে FIR দায়ের করে রিয়া। অভিযোগ করে রিয়া, সুশান্তের মৃত্যুর জন্য তার দিদিই দায়ী। তারা জাল প্রেসক্রিপশন দিয়ে ভুল ওষুধ খাইয়েছে সুশান্তকে। সিবিআই রিয়ার অভিযোগের তদন্ত করবে বলে জানা গিয়েছে। রিয়া চক্রবর্তীর গ্রেফতারির খবর আসতেই সুশান্ত সিং রাজপুতের পরিবারের সদস্যরা একের পর এক টুইট শুরু করে। সুশান্তের ভক্তরাও সত্যমেব জয়াতে বলে টুইট করেন।

সূত্রের খবর এনসিবির টানা জেরায় রিয়া ভেঙে পড়ে, তার সঙ্গে মাদক কারবারীদের যোগের কথা স্বীকার করে। তার দাবি মত, সে দীর্ঘদিন ধরে মাদকাসক্ত ছিল। যদিও প্রথমে রিয়ার দাবি ছিল, সুশান্ত গাজা ও চরসের নেশা করত, কিন্তু সে কোন প্রকার নেশাই করত না। গ্রেপ্তারের পর প্রথমে তাকে করোনা টেস্ট এবং পরে তাঁর চুল এবং রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে। পরীক্ষা করে দেখা হবে সে মাদকাসক্ত ছিল কিনা। গ্রেপ্তারি হবার পর রিয়া কেঁদে ফেলে।

এই নিয়ে সুশান্তের রহস্যজনক মৃত্যু তদন্তে মাদক যোগ সন্দেহে চারজনকে গ্রেপ্তার করল এনসিবি। কয়েকদিন আগেই রিয়ার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী কে এবং সুশান্তের হাউস ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকে গ্রেপ্তার করে এনসিবি। গ্রেপ্তার করা হয়েছে সুশান্তের পরিচারক দীপেশ সাওয়ান্তকেও।

Arindam

Content writer and blogger at Sangbad World