লঙ্কায় কমবে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা, গবেষণার ফলাফল জানালো আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন

আপনি কি জানেন আপনার যদি খাবার সাথে লঙ্কা (Chili) খাওয়ার অভ্যেস থাকে তাহলে আপনার স্বাস্থ্যের সার্বিক উন্নতি হতে পারে। লঙ্কা নিয়ে বহুদিন থেকেই মানুষের একটি বিরূপ ধারণা রয়েছে। লঙ্কা খেলে নাকি পেটে আলসার সংক্রান্ত রোগ হয়। কিন্তু সেই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল প্রমাণিত করে দিল আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন। বরং আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের (American Heart Association) সাইন্টিফিক সেশনের এর প্রাথমিক গবেষণায় উঠে‌ এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। বহু গবেষণার পর বিজ্ঞানীরা বলছেন, লংকা শরীরের ক্ষতি তো করেই না, উল্টে, লঙ্কা খেলে মানুষের শরীরে ক্যান্সার (Cancer) বা কার্ডিও ভাসকুলার ডিজিজ হওয়ার সম্ভাবনা কমে। Cancer risk reduced in Chili, study says American Heart Association.

Cancer risk reduced in Chili, study says American Heart Association
Cancer risk reduced in Chili, study says American Heart Association

ক্যান্সার নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রথম থেকেই একটা ভয় কাজ করে এসেছে। এখন চিকিৎসাবিজ্ঞান যথেষ্ট উন্নতি লাভ করলেও ক্যান্সার থেকে মানুষের স্মৃতি আজও সরেনি। বর্তমানে উন্নত চিকিৎসা বিজ্ঞানের ফলে বহু ক্যানসার নিয়ন্ত্রণে এলেও অথবা চিকিৎসায় মিললেও এমন অনেক ক্যান্সারের ধরন রয়েছে যা চিকিৎসা বিজ্ঞান জয় করতে পারেনি। মারণ রোগের প্রতি ভয় তাই এখনো মানুষের রয়েই গেছে।

ভারতে প্রতিবছর বহু মানুষ ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। ক্যান্সার নিয়ে আজও মানুষের মনে জাঁকিয়ে রয়েছে। ক্যান্সার রোগের চিকিৎসা খরচাও আকাশ ছোঁয়া। অনেকের পক্ষেই সেই খরচ বহন করা সম্ভব হয় না। তাই অভ্যাসটা যদি বাড়ি থেকেই শুরু করা যায়, তাহলে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা গোড়াতেই দমে যাবে।

লঙ্কার মধ্যে যে ঝাল রয়েছে তার জন্য দায়ী ক্যাপসাইসিন নামে একটি যৌগ। যে জাতের লঙ্কার মধ্যে ক্যাপসাইসিন এর পরিমাণ যত বেশি সেই জাতের লঙ্কায় ঝাল ও হয় বেশি। পাশাপাশি লঙ্কায় এমন সব গুণাগুণ ও যৌগ রয়েছে যা ক্যান্সার হওয়ার প্রক্রিয়া কে কয়েক ধাপ পর্যন্ত কমিয়ে দিতে পারে।

আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন মানুষের শরীরে লঙ্কা খাওয়ার কি প্রভাব পড়ে তা নিয়ে একটি সমীক্ষা করেছিল। সমীক্ষায় যুক্ত হয়েছিলেন প্রচুর মানুষ। আমেরিকা, চীন এবং ইরান থেকে ৫ লক্ষ ৭০ জন মানুষ এই সমীক্ষায় যুক্ত হন, যাদের ওপর লঙ্কা নিয়ে এই সমীক্ষা করা হয়েছে। এই সমীক্ষায় যা উঠে এসেছে তা চিকিৎসা বিজ্ঞানের ক্যান্সার সংক্রান্ত লড়াইয়ের অন্যতম সাফল্য বলা চলে। আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন এর এই সমীক্ষা একই সাথে যাঁরা লঙ্কা খান এবং করা লঙ্কা খান না তাঁদের ওপর করা হয়। সেই সমীক্ষায় উঠে আসে যে যাঁরা নিয়মিত লঙ্কা খান তাঁদের ক্যান্সার হওয়ার আশঙ্কা ২৩ শতাংশ কম।শুধু তাই না যাঁরা লঙ্কা খান তাঁদের কার্ডিও ভাসকুলার ডিজিজে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বাকিদের তুলনায় ২৬ শতাংশ কম এবং অন্যান্য যে কোনো মারণ রোগ হওয়ার সম্ভাবনা ২৫ শতাংশ কমে যায়। * cancer theke bachar upay