ভুল ম্যাপ প্ৰকাশ কংগ্রেসর, ভারতীয় মানচিত্রে বাতিল লাদাখ এবং কাশ্মীর

এই নিয়ে একবার নয় দু-দুবার একই ভুলের পুনরাবৃত্তি ঘটাল কংগ্রেস (Congress)। যে দেশে বসবাস করে সেই দেশের দেশবাসী হয়ে কি করে নিজের দেশের মানচিত্র ভুল আঁকতে পারেন সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠলো কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি সংশোধিত কৃষি আইন নিয়ে কৃষকদের যে বিক্ষোভ সারাদেশ জুড়ে অনবরত চলছে, কংগ্রেস তার পাশে আছে এই বার্তা দিতে গিয়ে নিজেই বিতর্কে জড়িয়ে পড়ল। ভারতের একটি মানচিত্র দিয়ে তারপাশে কৃষকদের ছবি লাগিয়ে, তার নীচে বার্তা দিয়ে একটি পোস্ট করা হয়েছিল অসম কংগ্রেসের তরফ থেকে সোশ্যাল মিডিয়াতে। সেই পোষ্টটি ঘিরেই যত বিতর্কের শুরু। ওই পোস্ট টিতে ভারতের মানচিত্র টি ব্যবহার করা হয়েছে সেই মানচিত্র থেকে বাদ গেছে লাদাখ এবং POK, এই দুটি অংশ তুলে দেওয়া হয়েছে চীন এবং পাকিস্তানের সীমানায়। Congress publishes the wrong map of India showing Ladakh as part of Pakistan and china.

Congress publishes the wrong map of India showing Ladakh as part of Pakistan and china
Congress publishes the wrong map of India showing Ladakh as part of Pakistan and china

দুই প্রতিবেশী শত্রু দেশের হাতে এভাবে ভারতীয় সাম্রাজ্যের অংশ তুলে দেওয়া নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে শুরু হয়েছে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে নিন্দা। অসম কংগ্রেসের তরফ থেকে যে ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়েছিল তার ক্যাপশনে লেখা ছিল কংগ্রেস কৃষকদের পাশে আছে। কিন্তু কৃষকদের পাশে থাকতে গিয়ে নিজেদের দেশকেই যে দল এভাবে ভাগ করে দেয়, সেই রাজনৈতিক দল সরকারে এলে তারা দেশ চালাবে কি করে এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠেছে তরজা। কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধাচারণ করতে গিয়ে এভাবেই যে নিজেদের বিপাকে পড়তে হবে তা বুঝতে পারেনি অসম কংগ্রেস।

Congress publishes the wrong map of India showing Ladakh as part of Pakistan and china
Congress publishes the wrong map of India showing Ladakh as part of Pakistan and china

সোশ্যাল মিডিয়ায় কংগ্রেসের এহেন নির্বুদ্ধিতার আচরণ দেখে নেটিজেনরা রীতিমতো প্রশ্ন তুলেছেন তাহলে কংগ্রেস কি এরই মধ্যে লাদাখ কে চীনের হাতে এবং কাশ্মীর কে পাকিস্তানের হাতে তুলে দিল? এই নিয়ে প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছে সমগ্র কংগ্রেস দল কে। কোন কোন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারী আবার এই প্রশ্নও তুলেছেন যে নিজের দেশের ভুল মানচিত্র প্রকাশ করলে তার বিরুদ্ধে সাংবিধানিক ব্যবস্থা যে নেওয়া যেতে পারে তা বোধহয় ভুলতে বসেছে কংগ্রেস। এই ধরনের সংবিধান বিরুদ্ধ কাজ করলে যে জরিমানা এবং কারাবাস হতে পারে তা চোখে আঙ্গুল দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন নেট জনতারা।

এই ঘটনা কংগ্রেসের প্রথমবার নয়। এর আগে সিএএ বিরোধী আন্দোলনে শামিল হতে গিয়ে কংগ্রেসের শশী থারুর যে ভারতীয় মানচিত্র প্রকাশ করেছিলেন, তাতে ভারত থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল জম্মু এবং কাশ্মীর কে।