ধর্ষককে টিকিট দেওয়ার অভিযোগ তুলে নিগৃহীত উত্তরপ্রদেশের কংগ্রেস নেত্রী

হাথরস কান্ড নিয়ে এখনো সরগরম জাতীয় রাজনীতি।হাথরস কাণ্ড নিয়ে সরব সারা দেশ। চলছে দফায় দফায় বিক্ষোভ, সোশ্যাল মিডিয়া উত্তাল।হাথরস কাণ্ডে একের পর এক নতুন চমক দেখা গেছে।কখনো নির্যাতিতার পরিবারের সাথে দেখা করা থেকে আটকে দেওয়া হয়েছে তৃণমূল সাংসদদের। কখনো বাধা দেওয়া হয়েছে কংগ্রেসকে। হাথরসের ঘটনাকে ঘিরে একের পর এক মন্তব্য উঠে এসছে। তোপ দাগছেন রাজনীতিকরা। Party Ticket Given To Rapist: Scuffle breaks out at Congress Deoria office.

শুধু তাই নয় উত্তরপ্রদেশে একের পর এক নারী নির্যাতনের ঘটনা সারা দেশে নারীদের সুরক্ষাহীনতার এক নম্বর স্থান উত্তর প্রদেশ। সেখানে মহিলারা কতটা বিপর্যস্ত সেই নিয়ে উত্তাল রাজ্য থেকে জাতীয় রাজনীতি।আবার সেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ দাবি করেন মহিলাদের নিরাপত্তায় উত্তর প্রদেশে এক নম্বর। এমনই রাজ্যে খোলা মঞ্চে পুরুষ সহকর্মীরা এক নারী সহকর্মীকে শারীরিক নিগ্রহ করছেন। মঞ্চের উপরে শুরু হয় হাতাহাতি। ভিডিও ফুটেজে এই ধরনের নিগ্রহের ছবি ই ফুটে উঠেছে। এ ছবি উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসের অন্তর্দ্বন্দ্ব। এই অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণ বিধানসভা নির্বাচন।

ঘটনায় নিগৃহীতা হলেন স্থানীয় কংগ্রেস নেত্রী তারা যাদব।দেওরিয়া বিধানসভা উপনির্বাচনে দলীয় মনোনয়নের দাবিদার ছিলেন এই তারা দেবী।কিন্তু সেই আশা পূরণ হয়নি তারার।তাঁর এবং অনুগামীদের অভিযোগ ধর্ষণে অভিযুক্ত মুকুন্দভাস্কর ত্রিপাঠীকে কংগ্রেস এর তরফ থেকে প্রার্থী নির্বাচন করা হয়েছে।

আগামী ৩ রা নভেম্বর ওই কেন্দ্রে বিধানসভা নির্বাচন। বিধায়ক জন্মেঞ্জয় সিংহের মৃত্যুতে ওই কেন্দ্রের আসন খালি ছিল।দেওরিয়া জেলা কংগ্রেস দফতরে কংগ্রেসের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।এআইসিসি-র সম্পাদক সচিন নায়েক ও হাজির ছিলেন সেখানে।তাঁরা ও তাঁর অনুগামীরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।তাঁরা মঞ্চে উঠে বিক্ষোভ করলে শুরু হয় হাতাহাতি।

রবিবার সকালে তাঁরা সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন।সংবাদ সংস্থা এএনআই এর সামনে তারা বলে ‘‘জেলা কংগ্রেস সভাপতি ধর্মেন্দ্র সিংহ, সহ-সভাপতি অজয় সিংহ এবং আরও দুই স্থানীয় কংগ্রেস নেতা আমাকে শারীরিক লাঞ্ছনা করেছেন। আমি ওঁদের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ জানাব’’। তিনি এমনও অভিযোগ করেন যে কংগ্রেস প্রার্থী মুকুন্দ এই ঘটনার নেপথ্যে রয়েছে।তিনি বলেন ধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত কে টিকিট বিলাচ্ছে কংগ্রেস। তিনি আরো বলেছেন ‘‘হাথরসে গিয়ে রাহুলজি-প্রিয়ঙ্কাজি যখন নির্যাতিতার পরিবারের পাশে দাঁড়াচ্ছে, উত্তরপ্রদেশ কংগ্রেস তখন ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্তকে টিকিট দিচ্ছে।’’

ধর্ষককে টিকিট দেওয়ার অভিযোগ তুলে নিগৃহীত উত্তরপ্রদেশের কংগ্রেস নেত্রী
ধর্ষককে টিকিট দেওয়ার অভিযোগ তুলে নিগৃহীত উত্তরপ্রদেশের কংগ্রেস নেত্রী