Sachin, Lata, Akshay-এর টুইটের বিরুদ্ধে তদন্ত করবে মহারাষ্ট্র সরকার

Farmers' Protest: The Maharashtra government will investigate Sachin, Lata Akshay's tweet against Rihanna's tweet

কৃষক আন্দোলন নিয়ে বিদেশের পপতারকা রিহানা এবং পরিবেশবিদ থানবার্গ সহ প্রাক্তন পর্নস্টার মিয়া খালিফা এতদিন যাবৎ নানা রকম মন্তব্য করেন ট্যুইট মাধ্যমে। এই মন্তব্যের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানান ভারতীয় সিনেমা জগতের প্রথম সারির তারকা দল। কঙ্গনা রানাউত সচিন তেন্দুলকার (Sachin Tendulkar) এবং সংগীত শিল্পী লতা মঙ্গেশকার (Lata Mangeshkar) এছাড়াও অক্ষয় কুমার (Akshay Kumar)। হাইপ্রোফাইল ব্যক্তিবর্গ বিদেশ মন্ত্রকের তরফে কঠোরভাবে একটি কথা জানিয়ে দেন যে ভারতের কৃষক আন্দোলনের মত ভেতরকার সমস্যা নিয়ে বাইরের কোন দেশের মন্তব্য কাম্য নয়। ভারতীয়দের সমস্যা ভারতীয়রা বুদ্ধি-বিবেচনা বিচারসহ সময়কালে মিটিয়ে নিতে পারবে তার জন্য বিদেশি ব্যক্তিবর্গকে প্রয়োজন পড়বে না। Farmers’ Protest: The Maharashtra government will investigate Sachin, Lata Akshay’s tweet against Rihanna’s tweet.

নানান সময়ে কৃষক আন্দোলন নিয়ে বিদেশি মন্ত্রকের কঠিন থেকে কঠিনতম মন্তব্যের পরই, সচিন তেন্দুলকার (Sachin Tendulkar) সহ লতা মঙ্গেসকার ভারতকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার কথা বলেছে। তারা এটাও বলেছে যে বাইরের কোনো মন্তব্যের আঁচ যেন ভারতের মধ্যে না পড়ে। এরূপ নানা রকম মন্তব্য তাঁরা টুইটের মাধ্যমে জানান বিশ্ববাসীর দরবারে। এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতেই এর তদন্ত শুরু করবে মহারাষ্ট্র সরকার এমনই বলছে সূত্রের খবর।

তারকাদের কৃষক আন্দোলন কে কেন্দ্র করে যে টুইট কেন্দ্রিক মন্তব্য আসছে তার ওপরে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের কোনো রকম চাপ আছে কিনা সে বিষয়ে খতিয়ে দেখবে বলে জানান মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ এর আধিকারিকরা। কৃষক আন্দোলনকে সমর্থন না করার জন্য ভারত সরকার তাদের ওপর কোনো রকম চাপ প্রয়োগ করছে কিনা বা অন্য কোন অপরাধমূলক কৃতকার্য চলছে কিনা সে বিষয়ে কড়া নজর দেওয়া হবে বলে মহারাষ্ট্র সরকার সূত্রে খবর।

অথচ কৃষক আন্দোলনকে ঘিরে রিহানা (Rihanna) ও থানবার্গের টুইট মন্তব্যকে সমর্থন জানায় ভারতীয় প্রথম সারিতে থাকা কিছু ব্যক্তিবর্গ। স্বরা ভাস্কর, রিচা চাড্ডা এবং দিলাজিত সহ শিবানী দান্ডকর। এরা প্রত্যেকেই কৃষক আন্দোলনের সমর্থনে বিদেশি ব্যক্তিবর্গকে সমর্থন করে মুখ খোলেন। এরপরই ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতে প্রথম সারিতে থাকা জনপ্রিয় অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত তাদের সমর্থনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। একবার নয় শুরু থেকেই তারকা কুইন একইভাবে তাদের সমর্থনকে তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছেন এবং নানা রকম মন্তব্যে আক্রমণ করছেন। এমনকি দিলাজিতকেও খালিস্তানি বলে আক্রমণ করেছে টুইটারের মাধ্যমে।

ভারতীয় কৃষক আন্দোলনকে ঘিরে একশ্রেণীর মানুষ যেমন সমর্থন প্রকাশ করছে তাদের নিয়ে যেমন নানান রকম প্রশ্ন উঠছে তেমনি বিপরীত দিকে এই আন্দোলনকে যারা কোনোভাবেই সমর্থন করছেন না এবং বিদেশিদের সমর্থনের প্রতি ফুঁসে উঠছেন তাদেরকে নিয়েও নানা রকম প্রশ্ন তুলছে সমাজ। এই অসমর্থনটাকেও সমাজ মেনে নিতে পারছে না ফল স্বরূপ এই বিষয়টিকে খতিয়ে দেখার দায়িত্ব মহারাষ্ট্র সরকার নিয়েছে বলেই সূত্রের খবর।