কঙ্গনার সঙ্গে ইমেল কাণ্ড, ঋত্বিককে তলব মুম্বই ক্রাইম ব্রাঞ্চের

Hrithik Roshan summoned by Mumbai crime intelligence unit to record his statement in case against Kangana Ranaut over alleged exchange of emails
Hrithik Roshan & Kangana Ranaut

কঙ্গনা (Kangana Ranaut) এবং ঋত্বিক (Hrithik Roshan) দুজনেই বলিউডের বেশ নাম করা তারকা। হিন্দি সিনেমার জগতে দুজনেই এক কথায় বলা যায় প্রথম সারির অভিনেতা অভিনেত্রী। আলাদা ছবি তো বটেই, একই ছবিতে তাদেরকে একবার নয় একাধিকবার দেখা গেছে। তার প্রমাণ ২০১০ সালে কাইটস্ ছবিতে এরপর ২০১৩ তে কৃষ্-৩ সিনেমাতেও তাদের যুগলবন্দী কাজের সাক্ষী দর্শক মহল। দুটো সিনেমাই দর্শকদের মনে ভীষণ ভাবে দাগ কেটে গেছিল। তারপর কঙ্গনার সূত্রে শোনা গেছিল যে তাদের মধ্যে সম্পর্কের আবির্ভাব হয়। ২০১৩-১৪ সালে তাদের মধ্যে ইমেইল মারফত কথাবার্তাও শুরু হয়। Hrithik Roshan summoned by Mumbai crime intelligence unit to record his statement in case against Kangana Ranaut over alleged exchange of emails.

২০১৬ সালে ঋত্বিক (Hrithik Roshan) অভিযোগ জানিয়েছেন যে কঙ্গনা (Kangana Ranaut) তাকে নানা রকম মন্তব্য করছেন ইমেইলের মাধ্যমে। এমনকি ঋত্বিককে ‘silly ex’ বলে মন্তব্য করেছেন কঙ্গনা। এখানেই শেষ নয় ১৪৩৯টি মেসেজ করেন যার কোন ঠিকঠাক মানে দাঁড়ায় না। এবং ইমেইল কেন্দ্রিক আরো অনেক অভিযোগ করার নামে ঋত্বিক করে থাকেন।

এরপরই মুম্বাই পুলিশ বিভাগ রিত্তিকের ল্যাপটপ ফোন ই-মেইল সবকিছু বাজেয়াপ্ত করে নেয়। কঙ্গনার Silly ex এক্স নামক মন্তব্য আসার পর ঋত্বিক আইনী নোটিশ পাঠায় কঙ্গনার (Kangana Ranaut) কাছে। এবং ঋত্বিক (Hrithik Roshan) প্রকাশ্যে কঙ্গনার সাথে তার কোন রকম সম্পর্ক এর কথা অস্বীকার করেছিলেন। এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে ঋত্বিককে মুম্বাই পুলিশ বিভাগ তাকে ডেকে পাঠায়।

তবে সূত্রের খবর ঋত্বিক (Hrithik Roshan) দাবি করেন যে এই ইমেইল আইডি তার নয়। তার নামে অন্য কেউ কঙ্গনাকে এইসব ভুল মেসেজ পাঠাত। কিন্তু কঙ্গনা (Kangana Ranaut) স্পষ্ট জানায় যে ২০১৪ সালে ঋত্বিক তাকে এই আইডিটি নিজে দিয়েছিলেন। ২০১৬ সালে অভিযোগের পর ২০২১ এর এই ইমেইল সংক্রান্ত ঘটনার এক নতুন যুগের উত্থান ঘটছে। মুম্বাইয়ের ক্রাইম ব্রাঞ্চে ক্রাইম ইন্টেলিজেন্স ইউনিট ঋত্বিককে ডেকে পাঠিয়েছেন আগামীকাল সকাল ১১ টায়। তিনি নিজেই এই মামলাটি অভিযোগ করেছিলেন পুলিশের কাছে। ২৭ ফেব্রুয়ারি এই অভিযোগের জন্য তাঁর বয়ান রেকর্ড করা হবে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। Hrithik Roshan summoned by Mumbai crime intelligence unit to record his statement in case against Kangana Ranaut over alleged exchange of emails.