চলতি বছরে কমতে পারে ভারতের GDP রেট, রিপোর্ট পেশ করল IMF

ভারত এখনও পুরোপুরি ভাবে উন্নত একথা বলা যায় না। তৃতীয় বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশগুলির মধ্যে ভারত একটি। প্রাচ্যের দেশগুলোতে যেভাবে অর্থনৈতিক উন্নতি বৃদ্ধি পায়, তাদের গ্রোথ রেট, এগ্রিকালচার, শিল্পনীতি সবকিছুতেই যেভাবে তারা এগিয়ে তার থেকে অনেক পিছিয়ে তৃতীয় বিশ্বের আমাদের এই দেশ। স্বাধীন হতেই সেই দেশের এত গুলো বছর লেগে গেল, স্বাধীনতার জন্য লড়তে দেশের অর্ধেক রসদ গেল বেরিয়ে, সেই দেশের পক্ষে অর্থনৈতিকভাবে শক্ত জমির উপর দাঁড়াতে একটু সময় তো লাগবেই।

ভারত অর্থনৈতিক দিক থেকে খুব বেশি এগিয়ে না থাকলেও একেবারেই পিছিয়ে নেই। ধীরে ধীরে বাড়ছিল ভারতের গ্রস ডমেস্টিক প্রোডাক্ট রেট । তবে বিভিন্ন রকম অর্থনৈতিক সংকটের কারণে এখন জিডিপি বেশ নিম্নগামী। করোনার জেরে ভারতীয় অর্থনীতিতে মেঘ ক্রমশ ঘনিয়ে আসছে। দেখা দিচ্ছে অশনি সংকেত। যা ক্রমশ অস্বস্তি বাড়াচ্ছে মোদি সরকারের। লকডাউন এর জেরে এমনিতেই বহু ভারতীয় চাকরি হারিয়েছেন, হয়েছেন কর্মহীন। আগামী দিনে ভারতের মাথাপিছু গ্রস ডমেস্টিক প্রোডাক্ট রেট আরো কমতে চলেছে, তা বাংলাদেশের চেয়েও কম হতে পারে, এমনটাই পূর্বাভাস ইন্টারন্যাশনাল মনিটরি ফান্ড বা আইএমএফ এর।

আইএমএফ-এর পূর্ব অনুমান অনুযায়ী,২০২০ সালের মধ্যে ভারতের মাথাপিছু জিডিপি কমে দাঁড়াবে ১ হাজার ৮৭৭ ডলার। যা ভারতীয় অংকের হিসাব অনুযায়ী ১ লক্ষ ৩৭ হাজার টাকার কিছু বেশি। উল্টোদিকে বাংলাদেশের জিডিপি বাড়বে ৪ শতাংশ, অর্থাৎ বাংলাদেশের জিডিপি বেড়ে হবে ১ হাজার ৮৮৮ ডলার। যা ভারতীয় অংকের হিসাব অনুযায়ী ১ লক্ষ ৩৮ হাজার টাকার কিছু বেশি।

জিডিপির দৌড়ে পড়শী দেশের কাছে ভারতের এই পিছিয়ে পড়ার সম্ভাবনার জন্য রাহুল গান্ধী দায়ী করছেন মোদি সরকারের ভ্রান্ত নীতিকেই। এ বিষয়ে রাহুল গান্ধী একটি টুইট করেছেন, সেই টুইটে তিনি লিখেছেন, আগামী ভবিষ্যতে বাংলাদেশ যে ভারতবর্ষকে ছাপিয়ে যেতে চলেছে তা ৬ বছরে বিজেপির বিদ্বেষমূলক সংস্কৃতির সাফল্যের ফসল।আইএমএফ মঙ্গলবার তার পূর্বাভাসে জানিয়েছে, ভারতের জিডিপি ১০.৩ শতাংশ পড়ে যেতে পারে চলতি বছরেই।

তবে হতাশ হওয়ার কিছু নেই, আগামী বছরেই ঘুরে দাঁড়াবে ভারতীয় অর্থনীতি। আর্থিক বৃদ্ধির হার বাড়তে পারে ৮.৮ শতাংশ। কিন্তু চলতি বছরে বাংলাদেশের জিডিপির হার ভারতের তুলনায় বাড়ার যে সম্ভাবনার কথা আই এম এফ এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে,তার সামনে আসার পর মূলত সমালোচনাও কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে মোদি সরকার কে। তবে আইএমএফের রিপোর্ট অনুযায়ী চীনের অর্থনীতি ১.৯ শতাংশ হারে বাড়তে পারে।

চলতি বছরে কমতে পারে ভারতের GDP রেট, রিপোর্ট পেশ করল IMF
চলতি বছরে কমতে পারে ভারতের GDP রেট, রিপোর্ট পেশ করল IMF