Rinku Sharma Murder Case: রিঙ্কু শর্মার হত্যাকাণ্ডে অরবিন্দ কেজরীবালকে একহাতে নিলেন কঙ্গনা

Rinku Sharma Murder Case in Delhi
Rinku Sharma Murder Case in Delhi

রিঙ্কু শর্মার (Rinku Sharma) হত্যাকাণ্ড নিয়ে বর্তমানে অগ্নিগর্ভ জাতীয় রাজনীতি মহল। রিঙ্কু শর্মার হত্যাকাণ্ড (Rinku Sharma Murder Case) নিয়ে টুইট করতে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতকে (Kangana Ranaut)। এই বিষয়ে কঙ্গনার সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। টুইটারে অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে নিশানা করে একহাত নিয়েছেন কঙ্গনা। Kangana Ranaut Tweet on Rinku Sharma Murder Case in Delhi.

রিঙ্কু শর্মা (Rinku Sharma) ছিলেন দিল্লিতে বজরং দলের অন্যতম এক কর্মী। রিঙ্কু শর্মার এই হত্যাকাণ্ড তদন্তের দায়িত্ব নিয়েছে ক্রাইম ব্রাঞ্চ। এর আগেও কঙ্গনা বিভিন্ন রাজনৈতিক ইস্যুতে মন্তব্য করে ট্রোলের শিকার হয়েছেন। এক্ষেত্রেও অন্যথা ঘটেনি কঙ্গনার (Kangana Ranaut) ক্ষেত্রে। কেজরিওয়ালকে উদ্দেশ্য করে কঙ্গনা টুইটারে লিখেছেন, রিঙ্কু শর্মার পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর কথা। পাশাপাশি কেজরিওয়ালের (Arvind Kejriwal) উদ্দেশ্যে বেশ কিছু পরামর্শ দিয়েছেন কঙ্গনা।

কঙ্গনার বক্তব্য অনুযায়ী রিঙ্কু শর্মার (Rinku Sharma) পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী (Arvind Kejriwal) কে। কঙ্গনার (Kangana Ranaut) কথায়, “প্রিয় কেজরিওয়াল জি, আশা করছি আপনি রিঙ্কু শর্মার পরিবারের সঙ্গে দেখা করবেন আর তাঁদের পাশে থাকবেন। আপনি রাজনীতিবিদ আশা করি আপনিও একজন রাষ্ট্রনায়ক হয়ে উঠবেন।”

কঙ্গনার শেষ কথায় রীতিমতো রেগে উঠেছেন নেটিজেনরা। অনেকেই বলেছেন একজন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে রাজনীতিবিদ হওয়া সত্ত্বে নিজের কাজ ভালো করে বোঝেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। কঙ্গনার তাঁকে উপদেশ দেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। আবার অনেকেই কঙ্গনার (Kangana Ranaut) পাশে দাঁড়িয়ে তার সাথে সরব হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এখানেই শেষ নয় কঙ্গনা কেজরিওয়াল উপদেশ দেওয়ার পাশাপাশি কেজরিওয়ালের এক পুরনো টুইট শেয়ার করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে কেজরিওয়াল বলেছিলেন ইকলাক খানের বাড়িতে যাওয়ার কথা, যিনি আসলে মব লিঞ্চিং এর শিকার।

শুধু এখানেই শেষ নয় কেজরিওয়ালকে অভিনেত্রী শর্মার বাবার ব্যথা অনুভব করার কথাও বলেছেন। নিজের পরিবারের ছেলেমেয়েদের কথা ভেবে রিংকুর (Rinku Sharma) বাবার পরিস্থিতি বিবেচনা করে দেখতে বলেছেন কেজরিওয়ালকে (Arvind Kejriwal)। ইতিমধ্যেই সুশান্ত সিং রাজপুত এর মৃত্যুর পর থেকেই নানা বিতর্কে জড়িয়েছেন কঙ্গনা (Kangana Ranaut)। বিতরকের পাশাপাশি নানান আইনি ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ছে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রী কে। কৃষি বিপ্লব নিয়ে বিভিন্ন কুরুচিকর মন্তব্য করায় দিলজিত দোসাঞ্জ এর সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়াতে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েছিলেন কঙ্গনা। রিঙ্কু শর্মার এই ঘটনায় মন্তব্য করে ট্রোলের শিকার হয়েছেন অভিনেত্রী কঙ্গনা। রাজনৈতিক মহলে এই নিয়ে চলছে জোরদার আলোচনা। যার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত।