Laxmiratan Shukla Resigns: মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে চিঠি দিয়ে মন্ত্রিত্ব ছাড়লেন মন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্ল

তৃণমূল দলের আরো এক জ্যোতিষ্ক বিদায় নিলেন দল থেকে। শুভেন্দু অধিকারীর পর এবার দল থেকে ইস্তফা দিলেন লক্ষ্মীরতন শুক্লা (Laxmiratan Shukla)। এতদিন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর পদে বহাল ছিলেন প্রাক্তন এই ক্রিকেটার। ২০১৬ সাল থেকে বিগত ৪ বছর ধরে রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন লক্ষ্মীরতন। ‌ হঠাৎ করে ভোটের আগে শুক্লার এই ধরনের সীদ্ধান্তে আঘাত পেয়েছে তৃণমূল (TMC)। Minister Laxmiratan Shukla left the ministry with a letter to Chief Minister Mamata Banerjee.

যদিও লক্ষ্মীরতন শুক্লার দাবি তিনি ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিলেও বিধায়ক পদ ছাড়ছেন না। আবার অন্যদিকে লক্ষ্মীরতন বলেছেন তিনি ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে সমগ্র রাজনীতি থেকেই অবসর নিচ্ছেন। তবে এখানে প্রশ্ন উঠেছে লক্ষ্মীরতন যদি রাজনীতি থেকেই ইস্তফা নিতে চান তাহলে তিনি কেবল মাত্র ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকেই ইস্তফা দিলেন কেন বিধায়ক পদে কেন বহাল থাকতে চাইছেন! এই বিষয়ে রাজ্য রাজনীতি অন্য রকম রহস্যের গন্ধ খুঁজে পাচ্ছে।

তৃণমূল থেকে ইস্তফা চেয়ে লক্ষ্মীরতন দলের কাছে ইস্তফা পত্র পাঠান।‌ মুখ্যমন্ত্রীর তরফ থেকে জানানো হয় লক্ষ্মীরতন এর পাঠানো সেই ইস্তফা পত্র গ্রহণ করবে নবান্ন। সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি তে যোগ দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। বর্তমানে তৃণমূলের রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এর গতিবিধি সম্বন্ধেও প্রশ্ন উঠেছে রাজনীতিতে। তাঁর অবস্থান নিয়ে জল্পনা ক্রমশ গভীর হচ্ছে। ভোটের আগে কেন এভাবে লক্ষ্মীরতন দল ছেড়ে চলে গেলেন সেই বিষয়ে কোনো রকম আন্দাজ দিতে পারেননি তৃণমূলের কুনাল ঘোষ।

তবে সৌগত রায়ের মতে লক্ষ্মীরতন শুক্লা যদি সত্যিই পদত্যাগ করেন তাহলে তিনি দুঃখ পাবেন বলে জানিয়েছেন। কেবলমাত্র রাজনীতি থেকেই নয় বিভিন্ন ক্ষেত্র থেকে মানুষজনকে রাজনীতির ময়দানে দাঁড়াবার সুযোগ করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ক্রীড়াজগৎ কিংবা অভিনয় জগত বিভিন্ন ক্ষেত্রের একাধিক মানুষ বর্তমানে তৃণমূল দলটির সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। কিন্তু ভোটের আগে কেন এভাবে একের পর এক কর্মী দল ত্যাগ করছে সেই নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

অন্যদিকে মন্ত্রী অরূপ রায় আবার জানিয়েছেন লক্ষ্মীরতন শুক্লা যে তৃণমূল ছেড়ে চলে যাচ্ছেন সেই বিষয়ে তিনি একটু আগে পর্যন্তও অবগত ছিলেন না। লক্ষ্মীরতন এর সঙ্গে অরূপ রায়ের মনোমালিন্য নিয়ে প্রশ্ন করা হলে অরূপ রায় বলেন লক্ষ্মীরতন শুক্লা তাঁর ছোট ভাইয়ের মতো। তাঁদের মধ্যে ভাতৃত্বের সম্পর্ক। তবে অরূপ রায় জানান লক্ষ্মীরতন শুক্লা এর আগেও বারবার তাঁকে জানিয়েছিলেন যে রাজনীতির কারণে খেলাধুলায় মন দিতে পারছেন না তিনি। সেই কারণেই লক্ষ্মীরতন এর এই দলত্যাগের সিদ্ধান্ত বলে মনে করেন অরূপ রায়।