দুবাই থেকে হানিমুনের ভিডিও শেয়ার নেহা কক্করের

বলিউডের অন্যতম গায়িকা নেহা কক্করকে (Neha Kakkar) নিয়ে জল্পনার অবসান হয় ২৪ শে অক্টোবর , যেদিন তিনি পাকাপাকি ভাবে বিয়ের আসরে বসেন। এর আগে বহুবার নেহার বিয়ে নিয়ে নানান জল্পনা শোনা গেলেও গায়িকা নিজেই তাতে জল ঢেলে দিয়েছেন। অবশেষে পুরনো বন্ধু রোহনপ্রীতকে (Rohanpreet Singh) বিয়ে করেন নেহা। এরপরই হানিমুন (honeymoon) করতে উড়ে যান দুবাইয়ে (Dubai)।

Neha Kakkar share honeymoon video from Dubai with Rohanpreet Singh

হিমাংশ কোহলির সঙ্গে সম্পর্কে ছেদ পড়লে শোনা যায় উদিত নারায়ণের ছেলে আদিত্য নারায়নের সঙ্গে সম্পর্কের কানাঘুষো। একটি গানের রিয়েলিটি শো তে বিচারকের আসনে বসেছিলেন নেহা।সেই শো তেই সঞ্চালনা করতেন আদিত্য। সেই থেকেই শোনা যায় তাদের মধ্যে একটি সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। কিন্তু পরে জানা যায় সবটাই সেই রিয়েলিটি শো এর প্রোমোর উদ্দেশ্যে সাজানো গল্প।

২৪ তারিখ নেহা এবং রোহনপ্রীত এর বিয়ের আসর বসে দিল্লিতে। কোনরকম জাঁকজমকে না গিয়ে গুরুদ্বারে নিষ্ঠা ভাবে বিয়ে সারেন নেহা ও রোহনপ্রীত। পরে অবশ্য পাঞ্জাবে তাদের বধূবরণ উৎসব বেশ বড় করেই অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরপর মুম্বাইতে রিসেপশনের পার্টিও দিয়েছেন নেহা। যেখানে তার বন্ধু বান্ধব এবং ইন্ডাস্ট্রির কলিগ রা উপস্থিত ছিলেন।

বিয়ে এবং রিসেপশন মিটে গেলেই হানিমুনের উদ্দেশ্যে পাড়ি দেন দুবাই।সেখানে পৌঁছেই বিভিন্ন পোজে ছবি তোলেন এই নব দম্পতি। বিভিন্ন ভিডিও ও শুট করেছেন তাঁরা। সেগুলি নেহা সোশাল মিডিয়ায় আপলোড করেছেন। আর আপলোড করতেই সেগুলিতে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন তাঁর অনুগামীরা। সাথে সাথে সেগুলি এত শেয়ার করেছেন তাঁর ফ্যানেরা যে সেগুলি মুহূর্তে ভাইরাল ও হয়ে গেছে।

রোহণের সঙ্গে সম্পর্কে আসার কয়েক মাসের মধ্যেই বিয়ের মত এত বড় একটা সিদ্ধান্ত নিয়ে নিয়েছিলেন নেহা। সেই নিয়ে গুঞ্জন কম হয়নি। নেহার খুব কাছের বন্ধু আদিত্য পর্যন্ত এই নিয়ে নেহা কে কথা শোনাতে ছাড়েননি। আদিত্য এও বলেছেন যে নেহা নেহাত কোনো বাচ্চা মেয়ে না। বিয়ের মত এরকম একটা সিদ্ধান্ত কি করে নেহা এই কম সময়ের মধ্যে নিয়ে ফেললেন! প্রকাশ্যে এই কথা বলতে শোনা গেছে আদিত্য নারায়ন কে। তবে এই বিষয়ে নেহা কিছু বলেননি।

শোনা গেছিলো নেহার মুম্বাই এর রিসেপশনে পর্যন্ত শামিল হবেন না আদিত্য। এই কথা প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয় গুঞ্জন। পরে অবশ্য আদিত্য প্রকাশ্যে জানান তাঁর কাঁধের চোটের জন্য তিনি দিল্লি থেকে মুম্বাই অবধি ট্রাভেল করতে পারবেন না।