পাকিস্তানও ভাল ভাবে করোনাকে সামলেছে, মোদি সরকারকে কটাক্ষ রাহুলের

ভারত অর্থনৈতিক দিক থেকে খুব বেশি এগিয়ে না থাকলেও একেবারেই পিছিয়ে নেই। ধীরে ধীরে বাড়ছিল ভারতের গ্রস ডমেস্টিক প্রোডাক্ট রেট । তবে বিভিন্ন রকম অর্থনৈতিক সংকটের কারণে এখন জিডিপি বেশ নিম্নগামী। করোনার জেরে ভারতীয় অর্থনীতিতে মেঘ ক্রমশ ঘনিয়ে আসছে। দেখা দিচ্ছে অশনি সংকেত। যা ক্রমশ অস্বস্তি বাড়াচ্ছে মোদি সরকারের। লকডাউন এর জেরে এমনিতেই বহু ভারতীয় চাকরি হারিয়েছেন, হয়েছেন কর্মহীন। আগামী দিনে ভারতের মাথাপিছু গ্রস ডমেস্টিক প্রোডাক্ট রেট আরো কমতে চলেছে, তা বাংলাদেশের চেয়েও কম হতে পারে, এমনটাই পূর্বাভাস ইন্টারন্যাশনাল মনিটরি ফান্ড বা আইএমএফ এর।

আন্তর্জাতিক অর্থ ভান্ডার বা আইএমএফ তাদের পূর্বাভাস জানাবার পর শুরু হয়েছে রীতিমতো রাজনৈতিক চাপান উতোর। চলতি অর্থবর্ষে সংকুচিত হতে চলেছে ভারতের অর্থনৈতিক অবস্থা। গ্রস ডমেস্টিক রেট সংকুচিত হতে পারে ১০.৩ শতাংশ। এই বিষয় নিয়ে রাজনীতিও কম হচ্ছে না। এই ঘটনাকে সামনে রেখে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী কটাক্ষ করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি জি কে। এদিন রাহুল গান্ধী টুইটারে লিখেছেন , ‘এটা বিজেপি সরকারের আরও একটি দুর্দান্ত সাফল্য’।

পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতি সাম্লানর ব্যাপারে সরকারের পদক্ষেপ নিয়েছে সে নিয়েও কটাক্ষ করতে ছাড়েনি কংগ্রেস। রাহুল গান্ধী বলেন ভারতের চেয়ে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান এই অতিমারি সামলাবার জন্য অনেক বেশি দায়িত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে। এদিন টুইট করে রাহুল গান্ধী অন্যান্য দেশের সাথে তুলনা করে ভারতের একটি চার্ট প্রকাশ করেছে। যেখানে বলা হয়েছে ২০২০-২০২১ সালে মায়ানমার, বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, চিন, আফগানিস্তান, পাকিস্তানের পাশাপাশি ভারতের অর্থনৈতিক অবস্থা তুলে ধরা হয়েছে। ভারতে অর্থনৈতিক অবস্থার যে সংকোচন হতে চলেছে তা অন্যান্য দেশের তুলনায় সবচেয়ে বেশি।

এর আগেও এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাহুল গান্ধীকে আক্রমণ করতে দেখা গেছিল। আইএমএফ এর রিপোর্ট অনুযায়ী চলতি অর্থবর্ষে বাংলাদেশ কেও ছাপিয়ে যাবে ভারতের অর্থনীতি সংকোচন। এদিন রাহুল সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে লেখেন ‘এই দুর্দান্ত সাফল্য বিজেপি-র ঘৃণায় ভরা উগ্র জাতীয়তাবাদী সংস্কৃতির ফল৷’

আইএমএফের প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী চলতি অর্থবর্ষে ভারতের অর্থনৈতিক সংকোচন ১০.৩ শতাংশ কমে হবে ১,৮৭৭ ডলারে।যা ভারতীয় অংকের হিসাব অনুযায়ী ১ লক্ষ ৩৭ হাজার টাকার কিছু বেশি। উল্টোদিকে বাংলাদেশের জিডিপি বাড়বে ৪ শতাংশ, অর্থাৎ বাংলাদেশের জিডিপি বেড়ে হবে ১ হাজার ৮৮৮ ডলার। যা ভারতীয় অংকের হিসাব অনুযায়ী ১ লক্ষ ৩৮ হাজার টাকার কিছু বেশি।

পাকিস্তানও ভাল ভাবে করোনাকে সামলেছে, মোদি সরকারকে কটাক্ষ রাহুলের
পাকিস্তানও ভাল ভাবে করোনাকে সামলেছে, মোদি সরকারকে কটাক্ষ রাহুলের