“অভিনন্দন বর্তমানকে না ছাড়লে ভারত হামলা করে দিতে পারে” পাক বিদেশ মন্ত্রী মোহাম্মদ কুরেশি

ভারতীয় সেনার বায়ু বিমান পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে (Abhinandan Varthaman) এখনো ভুলতে পারেননি দেশবাসী। তাঁর বীরত্ব, তাঁর দেশপ্রেম তাঁকে ভুলতে দেয়নি। ২০১৯ এর মার্চ মাসে পাকিস্তানের হাত থেকে মুক্তি পেয়েছিল ভারতীয় বিমান পাইলট অভিনন্দন বর্তমান। তবে সেই সময়ে পাকিস্তানের এহেন আচরণ ‘শান্তি ও সৌজন্য’ এর প্রতীক বলে মনে করেছিল গোটা দেশ। বিনা যুদ্ধে অভিনন্দন বর্তমানকে এভাবে কেন মুক্তি দিয়েছিল পাকিস্তান সে নিয়ে জল্পনাও এক বছরে কম হয়নি। তবে এমনটা মনে করা হয় যে অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি দেওয়ার পেছনে পাকিস্তানের উপর আন্তর্জাতিক চাপ ছিল প্রচুর। তবে কি পাকিস্তান ভারতের হামলার ভয় পেয়েছিল? প্রশ্ন এখনো রয়েই গেছে। Pakistani Foreign Minister Shah Mahmood Qureshi shocking statement on Abhinandan Varthaman.

Pakistani Foreign Minister Shah Mahmood Qureshi shocking statement on Abhinandan Varthaman
Pakistani Foreign Minister Shah Mahmood Qureshi shocking statement on Abhinandan Varthaman

প্রায় দেড় বছর পেরিয়ে গেছে এই ঘটনা। এতদিন পর পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (PML-N) নেতা আয়াজ সাদিক কে দেখা গেছে এ বিষয়ে মুখ খুলতে। তিনি একটি নতুন মন্তব্য করে বলেছেন সেদিন অভিনন্দন বর্তমান পাকিস্তানের হাতে বন্দি হওয়ার পর পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি (Shah Mahmood Qureshi) এক বৈঠকে বলেছিলেন- পাকিস্তান যদি অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি না দেয় তাহলে ওই দিন রাত ৯ টার মধ্যেই ভারত পাল্টা আঘাত করবে পাকিস্তানের উপর’।

শুধু তাই নয় এদিন পাকিস্তান নেতা আয়াজ সাদিক আরো বলেছেন,সেদিন কুরেশির ওই বৈঠকে পাক সরকার ইমরান খান উপস্থিত না থাকায় পাকসেনা প্রধান বৈঠকে উপস্থিত হয়ে ঘেমে নেয়ে একশা হওয়ার জোগাড় হয়েছিল। তখন বিদেশ মন্ত্রী বলেছিলেন, “আল্লার দোহাই, অভিনন্দকে না ছাড়লে ভারত রাত ৯ টার মধ্যে হামলা করবে।” Pakistani Foreign Minister Shah Mahmood Qureshi shocking statement.

পুলবামার সেনার কনভয়ে বিস্ফোরক হামলা চালিয়েছিল পাকিস্তান ২০১৯ সালে। সিআরপিএফের ৪০ জবান সেদিন শহীদ হয়েছিলেন সেই জঙ্গি আক্রমণের। এই ঘটনার মুখের ওপর জবাব দিতে ভারতীয় সেনাবাহিনী নিয়েছিল এক মাইলফলক সিদ্ধান্ত। রাতারাতি পাকিস্তানের মাটিতে ঢুকে বালাকোটে এয়ারস্ট্রাইক হেনেছিল ভারত। এই প্রতিবাদী যুদ্ধের অন্যতম শরিক ছিলেন ভারতীয় সেনার বায়ু বিমান পাইলট অভিনন্দন বর্তমান। সেই সময় অভিনন্দন এর বিমান ভেঙে পাকিস্তানের মাটিতে আহত হয়ে পড়েছিলেন অভিনন্দন। সেখান থেকে পাকিস্তান সেনারা ধরে নিয়ে যায় এই ভারতীয় বায়ু বিমান পাইলট কে।

দীর্ঘ তিন দিন অপেক্ষার পর অবশেষে আন্তর্জাতিক মহলের চাপ এবং ভারতের হামলার ভয়ে পিছপা হঠে পাকিস্তান ফিরিয়ে দেয় ভারতীয় উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান কে। এরপর দেশে ফিরে ওই একই ককপিটে আবারো যোগ দেন দেশ যোদ্ধা অভিনন্দন বর্তমান। Pakistani News in Bengali.