অনুরাগ বিতর্কে শেষমেষ রিচা চাড্ডার কাছে ক্ষমা চাইতে হল পায়েল ঘোষকে

গত মাসেই বলিউড পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছিল। অভিযোগ করেছিলেন পায়েল ঘোষ নামে এক বঙ্গ তনায়া।গত ২২ শে সেপ্টেম্বর পায়েল ঘোষ মুম্বাইয়ের বর্সোভা থানায় পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার দায়ে লিখিত অভিযোগ জানান। পায়েলের তরফ থেকে এ ধরনের অভিযোগ পাওয়ার পরেই মুম্বাই পুলিশ অনুরাগ কাশ্যপ কে ডেকে প্রায় ৮ ঘণ্টা জেরা করে। পায়েলের এ ধরনের অভিযোগের পর বলিউডের একাংশ বলে অনুরাগ এধরনের কোন কাজ করতেই পারেন না।অনুরাগ এর পক্ষে এই ধরনের কাজ করা অসম্ভব।

অনুরাগ কাশ্যপ কে নিয়ে ওঠা বিতর্কে পায়েল ঘোষ নাম জড়িয়ে ছিলেন অভিনেত্রী রিচা চাড্ডার। সেই জন্য রিচা চাড্ডা কাছে ক্ষমা চাইলেন পায়েল। অনুরাগ বিতর্কে রিচার নাম জড়ানোর অপরাধে ১কোটি ১০ লক্ষ টাকার ক্ষতিপূরণ চেয়ে মানহানির মামলা করেন রিচা।বম্বে হাইকোর্টে পায়েল এর বিরুদ্ধে এই মামলা দায়ের করেন রিচা। শুধু তাই নয়, ভরা আদালতে রিচার কাছে পায়েলকে নিঃস্বার্থ ক্ষমা চাইতে হবে এমন দাবি করেছিলেন রিচা চাড্ডা। বেশ কিছুদিন টালবাহানার পর রিচা কে অকারণে কালিমালিপ্ত করার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন পায়েল। তবে ভবিষ্যতে রিচা যাতে পায়েলের বিরুদ্ধে কোনরকম মামলা করতে না পারেন তা কাগজে কলমে আইনি প্রতিশ্রুতি করে নিয়েছেন পায়েল ঘোষ।

একটি ওয়েব পোর্টালের টুইটার হ্যান্ডেলে স্ক্রীনশট শেয়ার করে রিচা লেখেন ‘ডান’। অর্থাৎ পায়েল রিচার কাছে নিঃস্বার্থভাবে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন বলে সোমবার সকালে টুইট করেন অভিনেত্রী রিচা। এ বিষয়ে রিচা সবিস্তারে কিছু না জানালেও বিভিন্ন সংবাদ সূত্র অনুযায়ী জানা গেছে ভবিষ্যতে আর কোনো মামলা দায়ের না করার শর্তেই ক্ষমা চেয়েছেন পায়েল।

পুরো ঘটনাতেই রিচার পাশে ছিলেন অভিনেত্রী তাপসী পান্নু। তিনি বলেন ‘নিঃশর্ত ক্ষমাতেও কিছু শর্ত ঢোকানো হয়েছে। কী আর বলব বোন। কিন্তু জোরদার লড়াই করেছো তুমি’। তাপসীর এই টুইটারে শোরগোল পড়ে যায় নেটিজেনদের মধ্যে। একাংশ বলে ওঠে মিথ্যে বলে ফেঁসে যাওয়ায় এখন বাধ্য হয়ে ক্ষমা চাইতে হলো পায়েল কে।

নেটাগরিকদের কটাক্ষের মুখে পড়ে চুপ থাকেন নি পায়েল। শেষমেষ মুখ খোলেন তিনি ও। আইনি নথিপত্র তুলে ধরে তিনি বলেন রিচা সমস্ত শর্ত মেনে নিয়েছেন বলেই সবকিছু এত সহজে মিটে গিয়েছে। দুপক্ষের সম্মতিতেই এই মীমাংসা হয়েছে। তাই এক্ষেত্রে কেউ হারেনি, কেউ জেতেনি। তবে পায়েল যতই সাফাই দিক না কেন, সমালোচনা এবং কটাক্ষের হাত থেকে রেহাই পাননি এই বঙ্গ তনয়া।

Payal apologized to Richar in the affectionate debate
Payal Ghosh apologized to Richar in the affectionate debate