বিকিনি মডেলের ছবিতে Like পোপ ফ্রান্সিসের, এক ধাক্কায় ফলোয়ার বাড়লো ৬ লাখ

আমাদের অনেকেরই হয়তো সোশ্যাল মিডিয়া স্ক্রোল করতে করতে ভুল করে হাত ফসকে ভুল পোস্টে আঙ্গুল পড়ে যায়, কখনো বা সেই পোস্টে নিজের আঙ্গুলের ভুলের অজান্তেই লাইকও পড়ে গিয়ে থাকে। এই ভুল যে কারোরই হতে পারে যে কোনো সময়ে। কিন্তু স্বয়ং পোপ ফ্রান্সিসের (Pope Francis) এই ধরনের ভুল যে ক্ষমার অযোগ্য তা বুঝিয়ে দিল ভ্যাটিকান (Vatican City)। তবে যার পোস্টে স্বয়ং পোপ ফ্রান্সিসের এই লাইক পড়েছে সেই নাতালিয়া গারিবোতো (Natalia Garibotto) নিজে এই ঘটনায় বেশ আপ্লুত। Pope Francis ‘like’ a photo of Natalia Garibotto on Instagram the model earns huge followers.

Natalia Garibotto Pope Francis
Natalia Garibotto Pope Francis

নাতালিয়া গারিবোতো ব্রাজিলের (Brazil) বিকিনি মডেল। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশেষত ইনস্টাগ্রামে নাতালিয়ার প্রচুর ফটো। সোশ্যাল মিডিয়ায় ফটো আপলোড করে সেখান থেকেই মূল রোজগার এই ব্রাজিলীয় বিকিনি মডেলের। নাতালিয়া তার নিজের একটি স্টিমি ফটো আপলোড করেছিলেন ইনস্টাগ্রামে। যে ছবিতে নাতালিয়াকে দেখা গেছে মিনি স্কার্ট এবং একটি ক্রপ টপে। আর সেই ফটোতেই লাইক দিয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস। এই ঘটনায় রীতিমতো সমালোচনার মুখে পড়েছেন পোপ। কিন্তু একজন বিকিনি মডেলের ছবিতে কেনই বা লাইক দিলেন পোপ ফ্রান্সিস! সেই নিয়েই উত্তাল এখন সোশ্যাল মিডিয়া।

পোপ ফ্রান্সিসের এই ধরনের কাজের পেছনে প্রশ্ন উঠলে অনেকেই বলেছেন আদৌ এই লাইক স্বয়ং পোপ ফ্রান্সিসের কিনা সেই বিষয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। কারণ পোপ ফ্রান্সিসের অনেকগুলি সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট। যেগুলি মূলত তদারকি করে পোপ ফ্রান্সিসের সোশ্যাল মিডিয়ার দায়িত্বে থাকা লোকজন। মনে করা হচ্ছে তাদের তরফ থেকে এই ভুলটি করা হয়েছে। অনিচ্ছাকৃতভাবেই হয়তো নাতালিয়ার সেই ছবিতে লাইক পড়ে যায় পোপ ফ্রান্সিসের সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্টের দায়িত্বে থাকা কারোর।

তবে এই গোটা ঘটনায় আপ্লুত ব্রাজিলীয় বিকিনি মডেল নাতালিয়া। তার বক্তব্য “আমি অন্তত স্বর্গে যাব!” তার ছবিতে পোপ ফ্রান্সিসের লাইক পড়ায় এক ধাক্কায় এই মডেলের ফলোয়ার্স সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে ৬ লাখ। নাতালিয়া জানিয়েছেন যে সমস্ত নতুন ফলোয়ার্স তার হয়েছে তাদের বেশিরভাগই পোপ ফ্রান্সিসের ফলোয়ার। ওই মডেল আরো জানান যেহেতু ইনস্টাগ্রাম থেকেই তার রোজগার এবার থেকে অনেক বেশি ফ্যাশন নিয়ে কাজ কারবার করবেন তিনি।

নাতালিয়া বলেন তার ছবিতে পোপের লাইক পড়ার পর থেকে আরও দায়িত্ব বেড়ে গিয়েছে তার। যদিও এই ঘটনার পর নাতালিয়ার সেই ছবি থেকে পোপের লাইক মুছে দেওয়া হয়েছে। তবু এই ঘটনাটিকে নিয়ে মাতামাতি করে চলেছেন ব্রাজিলীয় মডেল।