শ্রীলেখা মিত্রর নামে ফেক ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে বন্ধুত্বের ডাক!

সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ফেক প্রোফাইল দেখে রীতিমতো ক্ষুব্ধ টলিউড অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)। শ্রীলেখার কথায় এর আগেও অনেকের কাছ থেকে শুনেছেন তিনি তার একাধিক ফেক প্রোফাইল এর ব্যাপারে। তবে এইবারের ঘটনা আলাদা। তিনি নিজের চোখে নিজের ফেক প্রোফাইল দেখে তবেই এর বিরোধিতা করেছেন। Srilekha Mitra is angry after seeing her fake profile on Facebook.

Sreelekha Mitra hot photo
Sreelekha Mitra

ফেসবুকে ফেক প্রোফাইলের ঘটনা যেন নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা হয়ে উঠেছে সেলিব্রেটিদের জীবনে। শ্রীলেখার আগে বহু সেলিব্রিটিকে পড়তে হয়েছে এই ধরনের উটকো ঝামেলার মুখে। রাজ চক্রবর্তী থেকে শুরু করে অপরাজিতা আঢ্য এমনকি শ্রাবন্তীর ফেসবুকের ফেক প্রোফাইলও খোলা হয়েছে এর আগে। শ্রীলেখা মিত্র জানিয়েছেন ফেসবুকে তাঁর যে ফেক প্রোফাইল টি খোলা হয়েছে সেই প্রোফাইলটির আসল‌ মালিক একজন পুরুষ। দেবাশীষ বসু নামে এক ব্যক্তি শ্রীলেখার নাম নিয়ে এবং ছবি ব্যবহার করে ফেসবুকে এই ফেক প্রোফাইলটি খোলেন, এমনটাই দাবি শ্রীলেখার।

এ বিষয়ে শ্রীলেখা বলেছেন দেবাশীষ বসু নামে এক ব্যক্তি তার ছবি ব্যবহার করে যে ফেসবুক ফেক প্রফাইল টি খুলেছেন তা দেখে শ্রীলেখা রীতিমতো হতভম্ব এবং ক্ষুব্দ। এই ভুয়ো প্রোফাইল ব্যবহার করে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাচ্ছেন দেবাশীষ নামে সেই ব্যক্তি। এই ঘটনার বিরুদ্ধে সরব হয়ে শ্রীলেখা সেই একাউন্টের স্ক্রিনশট নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন।

দেবাশীষ বসু নামে সে ব্যক্তির বিষয়ে শ্রীলেখা বলেছেন, “এই বেজন্মার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করুন”। যদিও শ্রীলেখার এই কথা কে ঘিরে শুরু হয়েছে নতুন করে বিতর্ক। শ্রীলেখার অনুরাগীরা অনেকেই শ্রীলেখার মুখ থেকে এই ধরনের কথা মেনে নিতে পারেননি। তাঁদের মতে শ্রীলেখা যথেষ্ট শিক্ষিত একজন নারী। তাঁর মুখে এধরনের কথা মানায় না।

শ্রীলেখা এও বলেছেন যে দেবাশীষ বসু নামে ওই ভদ্রলোক রীতিমতো বিকৃত মনস্ক। শ্রীলেখার নামে যে নকল অ্যাকাউন্ট টি খোলা হয়েছে শ্রীলেখা সেই একাউন্ট টি সম্পূর্ণভাবে দেখেছেন এবং তা দেখেই তিনি এই মন্তব্য করেছেন দেবাশীষ এর বিরুদ্ধে। শ্রীলেখা জানিয়েছেন কেবলমাত্র শ্রীলেখার গ্ল্যামারাস ছবিগুলিই ব্যবহার করা হয়েছে তাঁর নকল একাউন্টে।

শ্রীলেখার পাশাপাশি শ্রীলেখার অনুরাগীরাও এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। শ্রীলেখা তাঁর অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে বলেছেন এভাবেই যেন তাঁর অনুরাগীরা তাঁর পাশে থেকে যান। পাশাপাশি শ্রীলেখা জানিয়েছেন যেহেতু কারোর নাম দিয়ে তার অজান্তে তার ছবি ব্যবহার করে ভুয়ো প্রোফাইল খোলা অপরাধ তাই এই বিষয়টি নিয়ে তিনি ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলবেন।