Sangbad World

শিষ্যাদের লাগাতার ধর্ষণ, ১০৭৫ বছরের জেল তুরস্কের জনপ্রিয় ধর্মগুরুর

তুরস্কের (Turkey) একটি বিশেষ সংগঠনের প্রধান হলেন মুসলিম ধর্ম গুরু ওকতার। ধর্মপ্রচারের নামে মহিলাদের উপর দীর্ঘদিন ধরে অকথ্য যৌন অত্যাচার চালিয়ে আসা স্বঘোষিত ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে ১০৭৫ বছরের কারাদণ্ডের দণ্ডে দণ্ডিত করেছে তুরস্ক আদালত। উন্মত্ত এই মুসলিম ধর্ম গুরু আদালতে ঘোষণা করেন “আমার ১০০০ বান্ধবী রয়েছে”। ওকতারের এই কথা শুনে আদালত তার বাকি কথা আর শুনতে চান নি, ১০৭৫ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন ওকতারকে (Adnan Oktar)। Turkish TV preacher Adnan Oktar jailed for 1075 years for sex crimes.

বহু বছর ধরেই তার নামে নানান রকম মামলা চলে আসছে। ওকতারের নামে এমন অভিযোগও রয়েছে যেখানে জানা গেছে ধর্মপ্রচারের নামে মহিলাদের ওপর যৌন অত্যাচার করে ওকতার। তবে মুসলিম এই ধর্মগুরুর জনপ্রিয়তাও কিন্তু কম নয়। প্রায় ৬৪ বছর ধরে জনপ্রিয়তার শিখরে রয়েছেন ওকতার।

ওকতারের ভাবনায় মহিলারা ‘পোষ্য’। মহিলাদের সম্বন্ধে এই ধরনের ধারণা যে মানুষ পোষণ করে সে কি করে কোন ধর্মগুরু হিসেবে মানুষের মনে জায়গা করে নিতে পারে সেই বিষয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে তুরস্কের আদালত। বহুদিন আগেই তুরস্কের আদালত ওকতার কে অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত করেছে। সেই অনুযায়ী ২০১৮ সালে গ্রেফতার করা হয় একটি বিশেষ সংগঠনের প্রধান এই ওকতার কে। ওকতারের মতে তার জীবনে প্রেম বিলিয়ে চলাই মূল লক্ষ্য। তার হৃদয় অশেষ প্রেম রয়েছে। এমনকি ওকতার দাবি করে তার হাজার প্রেমিকা রয়েছে। কোন অনুষ্ঠানে ওকতার কে একা দেখা যায় না। সবসময়ই তার সাথে উপস্থিত থাকে একাধিক মহিলা।

২০১৮ সালে ওকতার কে গ্রেপ্তার করার পাশাপাশি তার সংগঠনের আরও একাধিক প্রধান কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মোট ৭৮ জনকে সেই সংগঠন থেকে গ্রেপ্তার করেছে তুরস্ক পুলিশ। এই সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ২৩৬ জনকে সন্দেহভাজন হিসেবে তালিকায় রাখা হয়েছে তুরস্ক পুলিশের তরফ থেকে। ওকতারের এই বিশেষ সংগঠন নানান রকম যৌন কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়ে আসছে ১৯৯০ সাল থেকে। শুধু তাই নয় ওকতার ধর্মপ্রচারের নামে মহিলাদের উপর যৌন অত্যাচার চালিয়ে আসছে এমনই অভিযোগ এনেছেন এক মহিলা। ২০১১ সাল থেকে নানান রকম মামলায় যখন জড়িয়ে পড়তে থাকে ওকতারের এই বিশেষ সংগঠনটি, সেই সময় পুলিশ সেই সংগঠনে হানা দিয়ে প্রায় ৬৯ হাজার গর্ভনিরোধক উদ্ধার করে। জানা যায় ওকতার তার বহু শিষ্যা কে যৌন অত্যাচার করার পরে এই গর্ভনিরোধক গ্রহণ করতে বাধ্য করতো।

Exit mobile version