Sangbad World

রোহতকে কলেজের কুস্তির আখড়ায় বন্দুকবাজের হামলা, এলোপাথাড়ি গুলিতে ঝাঁঝরা মহিলা কোচ-সহ ৫

Women Wrestlers Coach Among 5 Killed in Firing at Rohtaks Mehar Singh Akhada.

মার্কিন মুলুকে বেশ কদিন আগেই হঠাৎই গুলি বিদ্ধ হয়ে বেশ কয়েক জন প্রাণ হারিয়েছেন। ঠিক একইভাবে মার্কিনের ছায়া পড়েছে হরিয়ানাতে (Haryana)। শুক্রবার হরিয়ানা রোহতকে এক বেসরকারি কলেজে কুস্তি প্রতিযোগিতা চলছিল। সেখানেই জিমনেসিয়ামে ঢুকে এলোমেলোভাবে কিছু দুষ্কৃতী বন্দুক চালাতে শুরু করে। এবং হঠকারী গুলিতে কোচ সহ আরো পাঁচজন নিজের প্রাণ বলি দেয়। Haryana: Five people were killed and two others received injuries in a firing at a wrestling centre in Rohtak on Friday evening, according to the police.

এই কোচ বিভাগে ছিলেন দুজন মহিলা। মৃতের সংখ্যা ৭ দাঁড়ালেও আহতের সংখ্যার কোন হিসেব মেলেনি। তবে ঠিক কী কারণে হঠাৎ এরকম সাংঘাতিক পরিস্থিতি তৈরি হলো তা কারোরই জানা নেই। কিন্তু প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে জানা গেছে যে এদের মধ্যে পুরনো কোনো শত্রুতার জেরে এই পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র অনুসারে খবর পাওয়া যাচ্ছে দুই শিক্ষকের মধ্যে পুরনো বিবাদের থেকে এই ঘটনা সৃষ্টি। যে গুলি প্রথম চালিয়েছেন সে নিজেও একজন প্রশিক্ষক। এবং তারপর থেকে ফের গুলি হামলা শুরু হয়ে যায়। রোহতকের এই কলেজের সামনে রয়েছেন মেহর সিং আখরা (Mehar Singh Akhada)। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে যে পাঁচজন মারা গেছেন তারা হলেন শনি পথের বাসিন্দা মনোজ কুমার এবং তার স্ত্রী সাক্ষী। এবং উত্তর প্রদেশের অপর মহিলা কুস্তিগীর পূজা এবং কোচ সতীশ কুমার ও প্রদীপ মালিক এই গলিতে নিজের প্রাণ বলিদান দিয়েছেন। Women Wrestlers Coach Among 5 Killed in Firing at Rohtaks Mehar Singh Akhada.

তবে বেশ কিছু প্রাণ এখনো মৃত্যুর সাথে লড়ে যাচ্ছে। এই লড়ে যাওয়া প্রাণের মধ্যে একজন তিন বছরের শিশুও রয়েছে। আহত ব্যক্তিরা হরিয়ানার রহোতকের পি জি আই এম এস এর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে যে আহত ব্যক্তিরা এখনও শারীরিকভাবে খুব একটা ঠিক নয় তবে ডাক্তারদের তরফ থেকে তাদেরকে চিকিৎসার অধীনে রাখা হয়েছে। এবং ডাক্তাররাও তাদের যতোটুকু করা সম্ভব তার একশো শতাংশই করছেন। এছাড়া সরকারের তরফ থেকে যা যা পদক্ষেপ নেওয়া দরকার ঘটনা অবলম্বনে তার সবটাই সরকার নিচ্ছে। পুলিশের পাশাপাশি ফরেনসিক বিভাগ ও একইভাবে ঘটনার তদন্তে কাজ করা শুরু করে দিয়েছে। আশা রাখা যায় যে খুব শিগগিরই এই সমস্যার সমাধান তো হবেই এবং হঠকারী এই বন্দুক হামলার কারণ ও পুলিশ বিভাগ সকলের সামনে তুলে ধরবেন।

Exit mobile version